নদী। বাংলাদেশের নদী। ফিরিয়ে দাও নদী। রাজা সহিদুল আসলাম

0
442

নদী। বাংলাদেশের নদী। ফিরিয়ে দাও নদী।

রাজা সহিদুল আসলাম

নদীমাতৃক বাংলাদেশ। বাংলাদেশ যেমন সুজলা সুফলা তেমনি নদীবিধৌত। নদী পথ ছিল বাংলাদেশের এক সময়ের উল্লেখযোগ্য যোগাযোগ মাধ্যম। সেই নদী এখন শুকিয়ে যেতে বসেছে। অনেক নদী শুকিয়েই গেছে। নদী যেমন ছিল চলাচলের মাধ্যম তেমনি শস্য উৎপাদন এবং মৎস্য সম্পদের প্রধান নিয়ামক ছিল। নানা কারণে বাংলাদেশের নদী মরতে বসেছে। শৈশব-কৈশোরে যে সব নদীতে সাঁতার কেটেছি, বড়শি দিয়ে মাছ ধরেছি, আনন্দ উচ্ছাসের যে এক মাধ্যম ছিল যে নদী সেই নদী এখন আর নেই। চোখের সামনে নদী মরে গেল, আমরা শুধু চেয়ে চেয়ে দেখলাম। আমাদের করার কিছুই নেই। কাকে বলবো – আমার শৈশবের প্রিয় নদীকে ফিরিয়ে দাও। এর মধ্যে কিছু নদী বর্জপদার্থ দূষিত হয়ে যাচ্ছে।

নদী আমাদের ঐতিহ্যের সাথে মিশে আছে। জীবনের সাথে মিশে আছে। সাহিত্য-সংস্কৃতি-লোকজীবনের সাথে মিশে আছে। ফিরিয়ে দাও নদী। ফিরিয়ে দাও আমার স্মৃতি বিজড়িত নদী। নদী এক মুখে আমাকে দাঁড় করিয়ে রেখে আসছি বলে সেই যে গেলো আর ফিরলো না….

উইকিপিডিয়া মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে জানা যায় বাংলাদেশে শাখা-প্রশাখা সহ মোট ৮০০ নদ-নদী রয়েছে। অনেক জলরাশি সহ ২৪,১৪০ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে প্রবাহিত হচ্ছে বাংলাদেশের নদ-নদী। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ড যে তালিকা করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে ৪০৫ টি নদী। নিচে নদীর ছবি দেওয়া হলো –

# করতোয়া নদী, দেবীগন্জ, পঞ্চগড়, বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম।

# টাঙ্গন নদী, ঠাকুরগাঁও, বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম।

# শুক নদী, ঠাকুরগাঁও। বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম

# করতোয়া নদী, জয়গন্জ ঘাট, খানসামা, দিনাজপুর, বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম।

০১. চাড়ালকাটা নদী, নীলফামরিী সদর, নীলফামারী, বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম।

০৬. দেওনাই নদী, ডোমার, নীলফামারী, বাংলাদেশ। আলোকচিত্র: রাজা সহিদুল আসলাম।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here