অনুগল্প । গল্পের দাম । রাজা সহিদুল আসলাম

0
86

অনুগল্প
গল্পের দাম
রাজা সহিদুল আসলাম

এবারের বই মেলায় তার দ্বিতিয় গল্পের বই বেরিয়েছে। মেলায় সে প্রায় প্রতিদিনই আসছে, আড্ডা দিচ্ছে সবার সঙ্গে, মাঝে মাঝে তার প্রকাশকের স্টলে গিয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছে। বই বিক্রি হচ্ছে না। মেলা শেষের দিকে তারপরও বিক্রির বেহাল অবস্থা। সাকুল্যে তিনটা বই বিক্রি হয়েছে। তিনেই আটকে আছে তার বিক্রির সূচক। সে বুঝতে পারে তার ঐ তিনটা বইয়ের ক্রেতা কারা। একটা কিনেছে তার পুরাতন প্রেমিকা, একটা কিনেছে তার শাশুড়ি আর একটা কিনেছে তার স্ত্রী। এই তিন ক্রেতার উদ্দেশ্য তার পরিস্কার হয়ে উঠে। পুরাতন প্রেমিকা বইটা পড়ে একটা শক্তিশালি কু আলোচনা প্রস্তুত করবে। সেটা সে সবখানে বলে বেড়াবে। শ্বাশুড়ি কিনেছে, তার জামাই একজন লেখক-বুদ্ধিজীবী, গল্পের ফাঁকে ফাঁকে এই কথা বলে নিজের দাম বাড়াবে। স্ত্রী কিনেছে দুই কারণে, প্রথম কারণ – ছেলের স্কুলে সব ভাবীদেও দেখাবে, বলবে ওকে লেখার জন্য আমিই অনুপ্রেরণা দেই, লিখতে বসলে চা বানিয়ে দেই, পছন্দেও নাস্তা তৈরি করি, বিয়ের পরেই তো ওর দু’ দু’টা বই প্রকাশ হলো। দ্বিতীয় কারণ – ঝগড়ার সময় বলবে বইয়ের মধ্যে সব মিথ্যা কথা লিখেছো, তোমার হাড়ে হাড়ে বজ্জাতি, বাইওে মুখোশ পওে থাকো, তোমাকে আমি চিনি না। বলবে ও গুলো তোমার গল্প হয়েছে? ফালতু সব, একটা বই তোমার বিক্রি হয় না, বাংলাদেশের কোন মানুষ তোমাকে চেনে না, ওসবের পেছনে সময় নষ্ট না কওে টাকা রোজগাওে মন দাও, সংসারের আয় উন্নতি করার চেষ্টা করো। প্রেমের নাটক, প্রেমের উপন্যাস লিখলেও তো পারো, ভালো টাকা পাওয়া যায়। টাকা ছাড়া আজকাল চরে? কত লেখক শুধু লিখেই অনেক টাকা আয় করলো, টিভিতে সব সময় ওদেরকে দেখা যায়, তোমার একটা সাক্ষাৎকার পর্যন্ত দেখলাম না, লেখক হয়েছে!
মাত্র তিনটা বই, তাও বউ শ্বাশুড়ি প্রেমিকা, উদ্দেশ্যমূলক ক্রেতা তারা, ক্রেতা পাঠক নয়। মনটা তার একটু খারাপ হয়। তার গল্প জনবহুল এই দেশের একটা মানুষকেও ভাল লাগেনি? তার লেখক বন্ধু, অলেখক বন্ধু, স্কুল কলেজের বন্ধু, বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধু, একজনও কিনলো না! তার কলিগরা পর্যন্ত কেনেনি। অথচ খবরটা অনেকেই জানে। আবার এটাও মনে হচ্ছে – প্রকাশক মিথ্যে কথা বলছে না তো? তার কী-ই বা করার আছে।
বাংলাদেশে এত মানুষ, ষোল কোটি, শিক্ষিতের হার ৬৫%। দশ কোটি না হোক, পাঁচ কোটি না হোক, এক কোটি না হোক, দুই লাখ লোক যদি বই কিনতো তাহলে চেহারা পাল্টে যেতো। লোকজনের হাতে কি টাকা নেই? তার বইয়ের দাম বেশি নয়, মাত্র ১৫০ টাকা, ২০ শতাংশ কমিশনে দাম দাড়ায় ১২০ টাকা। ৬ফর্মার বই। গল্প রয়েছে ১৬ টি। ১৬ টি গল্পের দাম পড়ছে ১২০ টাকা, অর্থাৎ ১টা গল্পের দাম ৭ টাকা ৫০ পয়সা। বাংলাদেশের মানুষ সাড়ে সাত টাকা দিয়ে ১টা গল্প কিনতে পারে না? ১টা বেনসন সিগারেটের দাম ৮ টাকা। ১ টা সিগারেটের বিনিময়ে ১টা গল্প। এর চেয়ে সস্তা আর কী হতে পারে!

জনান্তিকে, লেখকরা এই সাড়ে সাত টাকা থেকে কত পাবে?
এই দেশে
লেখকরাই বিক্রি করছে খুব সস্তায় তাদের গল্প।
এমন কিছু আর আছে কি সস্তা বা কম দাম?
১৩ মার্চ ২০১২

—///—

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here